হাতির বিশ্বাস – ছোট গল্প

হাতির বিশ্বাস – ছোট গল্প

অনেকদিন আগে একজন ভদ্রলোক একটি হাতির শিবিরের পাশ দিয়ে হেটে যাচ্ছিলেন। হঠাৎ তিনি লক্ষ্য করলেন, শিবিরে থাকা হাতিগুলকে খাঁচায় রাখা হচ্ছে না এবং শিকলের সাহায্যে বেঁধেও রাখা হচ্ছেনা। শুধুমাত্র একটি ছোট্ট দড়ি তাদের পায়ের সাথে বাঁধা ছিল যেটি তাদের জন্য যথেষ্ট না হওয়া শর্তেও তাদের পালিয়ে যাওয়া থেকে বাঁধা দিচ্ছিল। লোকটি অবাক হয়ে হাতিগুলোর দিকে তাকিয়ে রইল। কারণ দড়িটি ছিঁড়তে তাদের সামান্য শক্তিই যথেষ্ট ছিল তবে তারা হয়তো সেই চেষ্টা একবারের জন্যও করিনি। তারা সেই ছোট্ট দড়িতে বাঁধা অবস্তায় তাদের সব কাজ করছিল কিন্তু পালাতে চেষ্টা করছিল না।

 

ভদ্রলোকটি যথেষ্ট কৌতহলি হয়ে নিকটে থাকা এক প্রশিক্ষকে জিজ্ঞাসা করলেন, “কেন সুযোগ থাকা শর্তেও হাতিগুলো একবারও পালাতে চেষ্টা করেনি?’’

 

উত্তরে প্রশিক্ষক বললেন, “তারা যখন খুব অল্প বয়স্ক এবং খুব ছোট ছিল তখন তাদের বাধার জন্য একই আঁকারের দড়ি আমরা ব্যাবহার করতাম এবং সেই সময় তাদের ধরে রাখার জন্য এই দড়িটি যথেষ্ট ছিল। যখন তারা ক্রমাগতভাবে বড় হওয়া শুরু করে তখন এক সময় তারা বিশ্বাসই করে নেয় যে তারা কখনই এই দড়ি ছিঁড়ে পালাতে পারবেনা এবং তারা এখনো বিশ্বাস করে যে এই দড়িটি তাদের ধরে রাখতে সক্ষম। তাই তারা কখনই পালিয়ে যাবার চেষ্টা করেনা। 

Leave a Reply